দুপুর ২:১১,   বৃহস্পতিবার,   ১৪ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং,   ৩০শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ,   ১৬ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

জগন্নাথপুরে স্কুলছাত্রী ধর্ষণ মামলায় সিএনজি চালক গ্রেপ্তার

জগন্নাথপুর প্রতিনধি :
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে দুই শিক্ষক কর্তৃক গণধর্ষণের ঘটনায় এবার সিএনজি চালক কয়ছর মিয়াকে (৩৫) গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জগন্নাথপুর থানা পুলিশ মঙ্গলবার রাতে তদন্ত ওসি নব গোপাল দাস ও এস আই হাবিবুর রহমান পিপিএম নেতৃত্ব তাকে গ্রেপ্তার করেছেন।
অভিযোগ রয়েছে, সিএনজি চালক কয়ছর মিয়া ওই ছাত্রীকে জগন্নাথপুর থেকে সিএনজিযোগে গোবিন্দগঞ্জ নিয়ে যান এবং ধর্ষণের পর বাড়ি পৌঁছে দিয়ে যান। মেয়েটির অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতেই কয়ছরকে গ্রেপ্তার করা হয়। কয়ছর মিয়া ছাতক উপজেলার তকিপুর গ্রামের মছব্বির মিয়ার পুত্র।
গণধর্ষণের ঘটনায় এর আগে শুক্রবার শিক্ষক বাপ্পা সেনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তিনি জগন্নাথপুরের সৈয়দপুর ইউনিয়নের আইডিয়াল গার্লস স্কুলের (খণ্ড কালীন) সহকারী শিক্ষক এবং কলকলিয়া ইউনিয়নের খাসিলা গ্রামের বাসিন্দা।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জগন্নাথপুরের অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়া ওই ছাত্রীকে গত ৪ মার্চ বেড়ানোর কথা বলে ছাতক উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা আয়াজুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের (খণ্ড কালীন) সহকারী শিক্ষক আব্দুস সামাদ আজাদের বাড়িতে নিয়ে যান। এরপর দুই শিক্ষক বাপ্পা ও সামাদ তাকে গণধর্ষণ করেন। ওই ছাত্রী এখন দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা।
জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতেয়ার উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় অভিযুক্ত সিএনজি চালক কয়ছরকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। অন্যদেরকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।