রাত ১২:৩৯,   বৃহস্পতিবার,   ২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ,   ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ,   ১৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

কমিটি ছাড়াই চলছে সুনামগঞ্জ ছাত্রদল, নেতৃত্বে আসতে দৌড়ঝাঁপ

বিশেষ প্রতিনিধি :
সুনামগঞ্জে ছাত্রদলের জেলা ও শাখা কমিটি নেতৃত্ব ছাড়াই কার্যক্রম চলছে। গত ৫ফেব্রুয়ারি সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রদল ও জেলার অধীন সকল উপজেলা, পৌর ও কলেজ শাখার কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে কেন্দ্র। প্রায় এক মাস হয়ে গেলেও নতুন কমিটি ঘোষণা করেনি কেন্দ্র। এদিকে নতুন কমিটির নেতৃত্বে আসতে থেমে নেই পদপ্রত্যাশীদের দৌড়ঝাপ।
ছাত্রদল সূত্রে জানা গেছে, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার চলমান আন্দোলন সংগ্রামে কার্যকর ভূমিকা রাখার লক্ষ্যে সুশৃঙ্খ ও সংগঠনিকভাবে গড়ে তোলার জন্য জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল সুনামগঞ্জ জেলা শাখাকে গত ৫ ফেব্রুয়ারি বিলুপ্ত ঘোষণা করে কেন্দ্র।
একই সঙ্গে ১১টি উপজেলা, ৪টি পৌর কমিটি সহ জেলার সব কলেজ কমিটিও একই সঙ্গে বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়। জেলা কমিটি দুই বছরের মাথায় বিলুপ্ত করা হলেও উপজেলা ও পৌর শাখা গুলোর মেয়াদ ছিল ১০বছরেরও অধিক।
কমিটি বিলুপ্ত করার সময় বলা হয়েছিল সাত দিনের মধ্যে (১৩ ফেব্রুয়ারি) তৃনমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের প্রত্যক্ষ অংশগ্রহণের মাধ্যমে জেলার নেতৃত্ব নির্বাচন করা হবে। কিন্তু প্রায় এক মাস হয়ে গেলেও জেলায় নতুন নেতৃত্ব দিতে পারেনি কেন্দ্র।
নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ জেলা কমিটি দেয়ার জন্য পদপ্রত্যাশী নেতাদের নাম ঝাচাই-বাঁছাই করছেন। জেলা বিএনপির বিবাদমান গ্রæপ গুলোর সঙ্গে সমন্বয় রেখে যোগ্য নেতৃত্ব বাঁছাইয়ে চেষ্ঠা চালাচ্ছেন তারা। প্রাথমিকভাবে আহবায়ক কমিটি দেয়ার চেষ্ঠা করছে কেন্দ্র।
জেলায় আহবায়ক হওয়ার দৌড়ে আছেন, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক ও সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, জেলা ছাত্রদল সাবেক যুগ্ম সম্পাদক মুমিত ইসলাম।
সদস্য সচিব হিসেবে নাম শুনা যাচ্ছে, ছাত্রদল নেতা নাসিম চৌধুরী, আজাদুর রহমান, তারেক আহমদ, শরিফ উদ্দিন।
সিলেট বিভাগের দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা ও কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সহ সভাপতি ওমর ফারুক কাওসার বলেন, সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রদলেল কমিটি গঠন নিয়ে আমরা কাজ করছি, আশা করছি দ্রতই কমিটি দিতে পারবো।