রাত ১২:৩৬,   বৃহস্পতিবার,   ২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ,   ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ,   ১৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

জগন্নাথপুরে দুইদিনেও আসেনি বিদ্যুৎ : সীমাহীন দুর্ভোগ

রেজুওয়ান কোরেশী :
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে গত দুইদিন ধরে বিদ্যুৎ না থাকায় সীমাহীন দুর্ভোগ বেড়েছে। বিদ্যুৎ কখন সরবরাহ করা হবে তা নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না সংশ্লিষ্টরা।
গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে সিলেটের কুমারগাঁওস্থ ১২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রে আগুন লেগে বিদ্যুতের দুটি গ্রিড পুড়ে যায়। এরপর থেকে জগন্নাথপুরসহ সিলেটের বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।
আজ বুধবার রাত সাড়ে ১০টা এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিদ্যু্ৎ সংযোগ পাওয়া যায়নি।
স্থানীয়রা জানান, গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে আজ বুধবার সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত বিদ্যুৎ না থাকায় অবর্ননীয ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন উপজেলাবাসী। বিদ্যুতের অভাবে পানি সংকট, ফ্রিজে থাকা জিনিসপত্র নষ্ট হচ্ছে, মোবাইল চার্জ দেয়া অসম্ভব হয়ে উঠেছে। মোমবাতি, হারিকেন, আর কোপি বাতির আলোরই এখন ভরসা হয়ে উঠেছে অধিকাংশ পরিবারের। বিদ্যুৎ নির্ভরশীল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ব্যাহত হচ্ছে।
অন্ধকারাচ্ছন্ন হয়ে আছে দোকানপাট ও বিপণিবিতান। কয়েকজন ব্যবসায়ী জানান, বিদ্যুৎ না থাকায় ক্রেতাদের উপস্থিতি কমে গেছে।
এদিকে সন্ধ্যা নামার সাথে পাড়া, মহল্লা আর গ্রামীণ জনপথ ভূতুরে পরিবেশ বিরাজ করছে। সমস্যা হচ্ছে ইন্টারনেট সংযোগেও।
জগন্নাথপুর বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সাধারন সম্পাদক জাহির উদ্দিন জানান, বিদ্যুৎ না থাকায় ব্যবসা বানিজ্য ক্ষতিক্ষতি হচ্ছে।
পৌরশহরের ইকড়ছই আবাসিক এলাকার সামিনা আক্তার নামের এক গৃহিনী জানান, দুইদিন ধরে বিদ্যুৎ না থাকায় সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। ঘরের ফ্রিজে থাকা জিনিসপত্র নষ্ট হয়ে গেছে। মোবাইলে ফোনে চার্জ না থাকায় দেশ বিদেশের আত্মীয় স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগ সম্ভব হচ্ছে না। কবে বিদ্যুৎ মিলবে তাও নিশ্চিত নয়।
জগন্নাথপুর উপজেলা আবাসিক (বিদ্যুৎ) প্রকৌশলী আজিজুল ইসলাম বলেন, ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে বিদ্যুৎ উপকেন্দ্র পুড়ে যাওয়া বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত স্থানে মেরামতের রাজ চলছে। তবে বিদ্যুৎ সংযোগ কখন পাওয়া যাবে তা নিশ্চিত করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে আজ মধ্যরাতে বিদ্যুৎ পাওয়া না গেলে কাল বৃহস্পতিবার সম্ভবনা রয়েছে বলে তিনি জানান।