দুপুর ১২:১১,   শনিবার,   ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ,   ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ,   ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

দীর্ঘকাল পর উজ্জীবিত ডন

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি :
প্রথমবারের বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন প্রয়াত জাতীয় নেতা সাবেক পররাষ্ট্র আব্দুস সামাদ আজাদ তনয় আজিজুস সামাদ ডন। এখবরে সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে আবারো উজ্জীবিত ডন বল লেন নেতাকর্মীরা।
দীর্ঘ বঞ্চনার পর কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পাওয়া দলের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এবং আজিজুস সামাদ ডনকে অভিনন্দন জানিয়ে আজ সোমবার বিকেল ৫টায় জগন্নাথপুর পৌরশহরে আনন্দ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
জানা যায়, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাতীয় নেতা আব্দুস সামাদ আজাদ ২০০৫ সালে মৃত্যু বরন করার পর থেকে আজিজুস সামাদ বাবার আসনে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার চেষ্ঠায় দীর্ঘকাল মাঠে কাজ করলেও দলীয় মনোনয়ন কিংবা আওয়ামী লীগের কোন দায়িত্বশীল পদে স্থান পাননি তিনি। গত জাতীয় নির্বাচনে সুনামগঞ্জ-৩ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশি আজিজুস সামাদ ডন নৌকা বঞ্চিত হন। এ আসনে নৌকা পান বর্তমান পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান। এতে করে আবারো ডন সমর্থকদের মধ্যে হতাশা নেমে আসে। তবে বর্তমান পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান, প্রবীন রাজনীতিবিদ সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সিদ্দিন আহমদ এবং জগন্নাথপুর পৌরসভার প্রয়াত মেয়র আব্দুল মনাফের প্রচেষ্টায় গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিভক্ত আওয়ামী লীগের কোন্দল নিস্পতি ঘটে। এরপর থেকে আর আওয়ামী লীগের মধ্যে কোন গ্রুপিং দেখা যায়নি।
এদিকে গতকাল আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের স্বাক্ষরিত পত্রে কেন্দ্রীয় কমিটিতে আজিজুস সামাদকে সদস্য নির্বাচিত করার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। এতে উল্লেখ করা হয়, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সন্মেলনে কাউন্সিলরদের ক্ষমতাবলে প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ তাকে এ মনোনয়ন দেওয়া হয়। তার শ্রম প্রজ্ঞা দিয়ে আওয়ামী লীগ কে শক্তিশালী করতে তিনি ভূমিকা রাখবেন।
আজিজুস সামাদের ঘনিষ্টজন হিসেবে পরিচিত জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জয়দ্বীপ সুত্রধর বীরেন্দ্র জানান, দীর্ঘদিন পর হলেও অবশেষে আজিজুস সামাদকে কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান দিয়ে তাঁকে মূল্যায়ন করায় জগন্নাথপুরের আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ সর্বস্তরের মানুষ খুশি। এই আনন্দে আমরা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে শহরে আনন্দ মিছিল করেছি।