বিকাল ৪:১৯,   শনিবার,   ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ,   ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ,   ১৪ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

নবীনগর-ধারারগাঁও সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন, দুর্ভোগে লক্ষাধিক মানুষ

স্টাফ রিপোর্টার :
টানা বৃষ্টিপাত ও পাহাড়ি ঢলের কারণে প্রতি বছরের মত এবারও ভাঙনের মুখে পড়েছে সুনামগঞ্জ শহরের নবীনগর-ধারারগাঁও সড়ক।
শনিবার কোন এক সময় সুরমা নদীর পানির প্রবল স্রোতে গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি ভেঙে যায়। সড়কটি ভেঙে যাওয়ায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে।
সুনামগঞ্জ পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড ও কোরবান নগর ইউনিয়নে মধ্যে পড়েছে এই সড়কটি। সড়কটি ভেঙে যাওয়ায় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার উত্তরপাড়ের এবং কোরবান নগর ইউনিয়নের লক্ষাধিকের উপরে মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। তাদের নৌকায় করে সুনামগঞ্জ সদরে আসতে হচ্ছে।
স্থানীয়রা জানান, প্রতি বছর টানা বৃষ্টিপাত ও পাহাড়ি ঢল শুরু হলেও প্রথম আঘাত হানে নবীনগর-ধারারগাঁও সড়কে। সর্বশেষ গেল বছর সড়কটি বন্যায় ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্থ হয়। পরে জরুরিভাবে সড়কটি মেরামত করে সড়ক যোগাযোগ সচল করা হয়।
শুক্রবার থেকে শুরু হওয়া টানা বৃষ্টিপাত ও পাহাড়ি ঢলের শনিবার কোন এক সময়ে ভেঙে যায় সড়কটি। পানির প্রবল স্রোতে প্রায় ২০-৩০ফুট সড়ক স্রোতে ভেঙে যায়। সড়কটি ভেঙে যাবার পাশাপাশি পানির নিচেও তলিয়ে গেছে। সড়কটি ভেঙে যাওয়ায় সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।
এতে কোরবান নগর ইউনিয়নের একাংশ, সুরমা নদীর উত্তরপাড়ের জাহাঙ্গীরনগর, রঙ্গারচর, সুরমা ইউনিয়নের লক্ষাধিক মানুষ বিপাকে পড়েছেন। সড়ক পথে জেলা শহরে আসা তাদের বন্ধ হয়ে গেছে। যান চলাচল বন্ধ থাকায় নৌকায় করে ভাঙা সড়ক পার হয়ে তাদের শহরে আসতে হচ্ছে।
ধারারগাঁও এলাকার রাজন মাহবুব বলেন, সড়কটি ভেঙে যাওয়ায় আমরা জেলা শহর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছি। নৌকায় করে আমাদের শহরে আসতে হচ্ছে। সড়কটি দ্রুত মেরামত করা না হলে আমাদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হবে।
শহরে বিলপাড় এলাকায় বসবাসকারী রাজীব সেন বলেন, আমাদের গ্রামের বাড়ি কোরবাননগরের ব্রাহ্মণগাঁও এলাকায়। সড়কটি ভেঙে যাবার কারণে গ্রামে আতœীয়স্বজনকে দেখতে যেতে পারছি না।
এব্যাপারে এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুব আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।