সকাল ১০:৪৯,   সোমবার,   ২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ,   ৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ,   ১৫ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

সুনামগঞ্জের শিক্ষাকে আন্দোলন হিসেবে গ্রহণ করতে চাই : পীর মিসবাহ

স্টাফ রিপোর্টার :
জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় হুইপ অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ এমপি বলেছেন, আমি সুনামগঞ্জের শিক্ষাকে আন্দোলন হিসেবে গ্রহণ করতে চাই। কারণ আমাদের জন্য খুব লজ্জজনক যে আমরা যারা নেতৃত্ব দেই, আমরা যারা নিজেদেরকে নেতা দাবি করি এমনকি এই সুনামগঞ্জের সমস্ত শিক্ষিত মানুষের লজ্জার বিষয়টি হচ্ছে বাংলাদেশের ৬৪টি জেলা মধ্যে একবারে পিছনের দিকে শিক্ষা ক্ষেত্রে সুনামগঞ্জ জেলা। এর চেয়ে বড় লজ্জা কি আর হতে পারে যে শিক্ষায় আমরা এত পিছিয়ে আছি, এবং এই ভাবে যদি চলে তাহলে সুনামগঞ্জের ভবিষ্যৎ অন্ধকার হয়ে যাবে।
তিনি বলেন, ২০১৭ সালে যখন হাওর ফসল হানি হয়েছে। হাওরের ফসল হানির ঘটনা ঘটলে আমরা সমস্ত মানুষ একসাথে রাস্তা নেমে আন্দোলন করি, দুযোর্গ এলাকা ঘোষণা করার জন্য দাবি জানাই, আর শিক্ষাক্ষেত্রে সুনামগঞ্জ অনেক পিছিয়ে ৬৩ নাম্বার জেলাতে আছে শিক্ষা ক্ষেত্রে এর চেয়ে বড় দুর্যোগ আরও কোথাও আছে বলে আমি মনে করি না, তাই সুনামগঞ্জের শিক্ষাকে আমি আন্দোলন হিসেবে গ্রহণ করতে চাই।
তিনি বলেন, সরকারি জুবলী উচ্চ বিদ্যালয়ে যারা ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে লেখাপাড়ার সুযোগ পেয়েছে আসলেই তারা মেধাবী। কারণ তারা প্রতিযোগিতা মূলক পরীক্ষার মধ্য দিয়েই এই বিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ পেয়েছে। আমি তাদেরকে অভিন্দন জানাই।
আজ (২৩ জানুয়ারি) দুপুরে সুনামগঞ্জ সরকারি জুবলী ইচ্চ বিদ্যালয়ের আয়োজনে বিদ্যালয়ে মাঠ প্রাঙ্গনে নবীণ বরণ ও কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
সরকারি জুবলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.ফয়েজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, শিক্ষাবিদ পরিমল কান্তি দে, সাবেক শিক্ষা কর্মকর্তা মকবুল হোসেন, সরকারি জুবলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক মকবুল হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার হাজী নুরুল মোমেন প্রমুখ।