রাত ১০:৩৭,   বৃহস্পতিবার,   ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ,   ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ,   ১৫ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

করোনা প্রতিরোধে সুনামগঞ্জে আইসোলেশন ইউনিট প্রস্তুত

মোসাইদ রাহাত :
বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত তিনজন রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকেই ভাইরাস মোকাবেলায় কাজ করছে স্বাস্থ্য মন্ত্রনায়ল। যার ফলস্বরুপ করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় হাওর প্রধান জেলা সুনামগঞ্জে নেওয়া হয়েছে প্রস্তুতি। সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতাল ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ নবনির্মিত হাসপাতালে ব্যবস্থা করা হয়েছে ১০০ শয্যা বিশিষ্ট করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ড।
জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় প্রচার-প্রচারণা থেকে শুরু করে সকল উপজেলায় নেওয়া হয়েছে বিশেষ প্রস্তুতি। সুনামগঞ্জ সদর হাসাপাতালের পুরাতন ভবনের দ্বিতীয় তলায় ৫০ শয্যা বিশিষ্ট স্থান নিয়ে করা হয়েছে করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ড। যার মধ্যে ওয়ার্ড দুটিকে আলাদা করে ২৫-২৫ এ ভাগ করে নেওয়া হয়েছে পুরুষ ও মহিলা ওয়র্ডে। তাছাড়া পরিস্থিতি যদি খারাপ হয় তাহলে সুনামগঞ্জের দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় নতুন নির্মিত হাসপাতালেও ব্যবস্থা করা হয়েছে আরো ৫০ শয্যার। তাছাড়া বিদেশ ফেরত মানুষদের জন্য আলাদা কোন কোয়ারন্টোইন এ রাখার ব্যবস্থা এখনো না করা হলেও পরিস্থিতির সাথে সাথে কোয়ারন্টোইনের ব্যবস্থা করে ফেলা হবেও বলে জানা যায়। তাছাড়া আবহাওয়া পরিবর্তন হওয়া হঠাৎ, জ্বর, সর্দি কাশি হওয়া রোগীদের জন্য করা হয়েছে আলাদা ব্যবস্থা। এদিকে সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল হুদা মুকুটকে উপদেষ্ঠা করে এবং জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদকে সভাপতি ও সিভিল সার্জন ডা. শামস উদ্দিনকে সদস্য সচিব করে করা হয়েছে ১১ সদস্য বিশিষ্ট করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটি।
সিভিল সার্জন ডা. শাসম উদ্দিন বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আমার শতভাগ প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। আমরা সদর হাসাপাতালের পুরাতন ভবনে ৫০ শয্যা এবং দক্ষিণ সুনামগঞ্জ নতুন নির্মিত ভবনে ৫০ শয্যা করে আইসোলেশন ওয়ার্ড প্রস্তুত করা হয়েছে। তাছাড়া আমরা চিকিৎসক ও নার্সদের নিয়ে একটি ওরিয়েন্টশনও করা হবে।