রাত ১০:১৯,   বৃহস্পতিবার,   ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ,   ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ,   ১৫ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

ঢাকায় জ্বর কাশিতে মৃত্যু: লাশ ধোয়া ও নিয়ে আসাদের কোয়ারেন্টাইন

তাহিরপুর প্রতিনিধি :
জ্বর সর্দি কাশিতে মারা যাওয়া গার্মেন্টস কর্মী জহিরুল (২২) মারা যাওয়ার পর তার মৃতদেহ নিয়ে আসা ও ধোয়ানোর কাজে নিয়োজিত ৭ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়েছে প্রশাসন।
বৃহস্পতিবার রাতে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার মাহতাবপুর গ্রামের গোরস্থানে দাফন করার পর প্রশাসন এ নির্দেশনা প্রদান করে।
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ঢাকার গাজীপুরের একটি গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে চাকুরী করতেন জহিরুল। কয়েকদিন আগে জ্বর সর্দি কাশিতে ভর্তি হন ঢাকার একটি হাসপাতালে এবং বুধবার সেখানেই মৃত্যুবরণ করেন তিনি। পরে তার গার্মেন্টস ফ্যাক্টরির সহযোগিরা তার মরদেহ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসলে সেখানের একটি গোরস্থানে দাফন করা হয় তাকে। পরবর্তীতে প্রশাসন বিষয়টি জানলে তাহিরপুর থানা পুলিশ ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকগণ মাহতাবপুর গ্রামে যান। জহিরুলকে যারা গাজীপুর থেকে বাড়ি নিয়ে এসেছে এবং লাশ ধোয়ানোর কাজে যারা নিয়োজিত ছিলেন তাদের ৭ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা প্রদান করেন।
তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ইকবাল হোসেন বলেন, সংশ্লিষ্টদের সাথে ঢাকায় যোগাযোগ করেছি। তারা নির্দেশনা দিয়েছেন যে, যারা ঢাকা থেকে লাশ নিয়ে এসেছেন এবং ধুয়ানোর কাজে ছিলেণ তাদের সবাইকে আগামী দুই সপ্তাহ হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখার জন্য বলা হয়েছে।
তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যানার্জী বলেন, আমি এ বিষয়ে অবহিত হওয়ার পর তাহিরপুর থানার ওসি ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাকে বিষয়টি জানালে দায়িত্বরতা তাদের ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা দিয়েছেন।