ভোর ৫:৩৫,   বুধবার,   ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ,   ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ,   ১৩ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

প্রধান শিক্ষক গিয়াস জেল হাজতে: সাময়িক বরখাস্ত

স্টাফ রিপোর্টার :
সুনামগঞ্জে বিদ্যালয়ে ছাত্রীদের পর্নো ছবি দেখানো ও যৌন হয়রানির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক গিয়াস উদ্দিনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে সুনামগঞ্জ সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলাটি দায়ের করেন হয়রানির শিকার এক ছাত্রীর পিতা।
এদিকে বুধবার দুপুরে অভিযুক্ত শিক্ষককে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শুভ দীপপালের আদালতে হাজির করা তাকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন আদালত।
সুনামগঞ্জ সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, শহরতলীর মাইবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গিয়াস উদ্দিনের বিরুদ্ধে ৮ শ্রেণির চার ছাত্রীকে বিভিন্ন সময়ে গাইড বই দেয়ার নামে বিদ্যালয়ের ছাদে নিয়ে পর্নো ভিডিও দেখতে বাধ্য করা, নানা অজুহাতে শরীরে হাত দেয়া, যৌনপীড়নের অভিযোগে এক অভিভাবক মামলা দায়ের করেছেন। বুধবার সুনামগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শুভদীপ পাল হয়রানির শিকার চার ছাত্রীর ২২ধারার জবানবন্ধী গ্রহণ করেন। পরে আদালত আসামিকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।
এর আগে মঙ্গলবার বিকেলে চার ছাত্রীকে পর্নো ছবি দেখানো ও যৌন হয়রানী অভিযোগে ঐ প্রধান শিক্ষককে আটক করে পুলিশে দেয়া অভিভাবকসহ স্থানীয় লোকজন।
সিলেট বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের বিভাগীয় উপ-পরিচালক একেএম সাফায়েত আলম বলেন, প্রধান শিক্ষক গিয়াস উদ্দিনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে, তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়ের করা হবে।