রাত ৯:০৫,   বৃহস্পতিবার,   ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ,   ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ,   ১৫ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

বাউল সম্রাটের জন্মদিনে নীরব সুনামগঞ্জ

স্টাফ রিপোর্টার :
সমাজ পরিবর্তনের লোকশিল্পী একুশে পদকপ্রাপ্ত বাউল সম্রাট শাহ আব্দুল করিমের ১০৪তম জন্মবার্ষিকী আজ শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি)। কিন্তু এই দিনে সুনামগঞ্জ জেলা শহরের কোথাও নেই কোনো গানের অনুষ্ঠান বা আলোচনা সভা।
জানা গেছে, বাউল সম্রাটের গ্রামের বাড়ি দিরাই উপজেলার উজান ধল গ্রামে শাহ আব্দুল করিমের ভক্ত ও একমাত্র ছেলে শাহ নূর জালালের উদ্যোগে রাতে বসবে গানের আসর। তবে জেলা শহরের কোথাও শাহ আব্দুল করিমের জন্মদিন উপলক্ষ্যে কোনো প্রকার আয়োজন না থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভক্তরা। এদিকে করিমের গ্রামের বাড়িতে গানের আয়োজনে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনো প্রকার সহযোগিতা না করার কারণে হতাশ দিরাই উপজেলার বাউল শিল্পীরা।
জেলা শহরের কোথাও অনুষ্ঠান না থাকার ব্যাপারে জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক শামছুল আবেদীন বলেন, ‘আমরা শাহ আব্দুল করিমের জন্মদিন
উপলক্ষ্যে তেমন কোনো বড় আয়োজন করিনি। কারণ কিছুদিন পর সুনামগঞ্জের চার লোককবি হাছন রাজা, শাহ আব্দুল করিম, রাধারমণ দত্ত ও দূরবিন শাহকে নিয়ে উৎসব করা হবে। তাই এখন আর তেমন কোনো অনুষ্ঠান করা হচ্ছে না। আমরা এসএমই মেলায় অংশ নিয়েছি। সেখানে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে। সেখানে আমরা শাহ আব্দুল করিমের গান পরিবেশন করব।’
আব্দুল করিম স্মৃতি পরিষদের সভাপতি আপেল মাহমুদ বলেন, ‘শাহ আব্দুল করিমকে চেনে না দেশে এমন মানুষ কম আছে। কিন্তু তাঁর জন্মদিনে কোনো প্রকার আয়োজন না থাকায় আমরা হতাশ। শাহ আব্দুল করিমের ছেলের উদ্যোগে ছোট পরিসরে রাতে গানের আয়োজন করা হয়েছে।’
১৯১৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি উজানধল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন বাউল সম্রাট শাহ আব্দুল করিম। মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত মানুষকে আনন্দ দেবার পাশাপাশি সমাজ ও রাষ্ট্রের নানা অসংগতির কথা গানে গানে জানিয়ে গেছেন এই বাউলশিল্পী। নিলোর্ভ নিরহংকার কিংবদন্তী এই বাউল শিল্পী ২০০৯ সালের ১২ সেপ্টেম্বর ৯৩ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুর পর সর্বস্তরে বিশেষ করে সাধারণের কাছে আরো বেশি জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন বাউল শাহ আব্দুল করিম।