রাত ৯:১২,   বৃহস্পতিবার,   ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ,   ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ,   ১৫ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

সুনামগঞ্জে মানা হচ্ছে না জনসমাগমের বিধি নিষেধ

বিশেষ প্রতিনিধি :
বৃহস্পতিবার সকালেই সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সামাজিক, ধর্মীয়সহ সব ধরনের জনসমাগমে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। বিষয়টি সামাজিক যোগাগোয মাধ্যম, স্থানীয় পত্রিকার মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে জানানো হয়েছে। কিন্তু প্রশাসনের বিধি নিষেধ মানা হচ্ছে না বিভিন্ন জায়গায়।
বিশেষ করে জেলার জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র পদে উপ নির্বাচন ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার সলুকাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে উপ নির্বাচনে জনসমাগম করেই প্রচারণা চালাচ্ছেন প্রার্থীরা। বিভিন্ন দলের নেতাকর্মীরা জড়ো প্রচরাণা ও সভা, সমাবেশে অংশ নিচ্ছেন। এতে জনমনে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।
বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জ আসনে কেন্দ্রীয় আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শফিক। তিনি সুনামগঞ্জ শহরে জনসমাগম করেই করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে লিফলেঠ বিতরণ করেন। পরে সলুকাবাদ ইউনিয়নে বড় জমায়েত(সমাবেশ) করে বক্তব্য রাখেন। সেখানে দলীয় নেতাকর্মী ছাড়াও হাজার খানেক সাধারণ মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
অন্যদিকে প্রবাসী অধ্যুষিত জগন্নাথপুরে চলছে মেয়র পদে উপ নির্বাচনের প্রচারণা। প্রবাসীরা এসব প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন। লোক জমায়েত করে আ.লীগ-বিএনপির প্রার্থী প্রচারণা, গণসংযোগ করছেন। প্রশাসনের বিধি নিষেধের তোয়াক্কা করছেন না প্রার্থীরা। সব চেয়ে বেশি আতঙ্ক দেখা দিয়েছে প্রবাসীরা নির্বাচনের প্রচারণায় অংশ নেয়ায়।
আবু সালেম নামের এক উন্নয়ন কর্মী বলেন, বিশ্বের করোনা ভাইরাস আক্রান্ত প্রায় দেশেই জনসমাগম নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সেসব দেশে সড়কেও মানুষ চলাচল অনেক কম। কিন্তু তার উল্টো আমাদের দেশে। নিষেধাজ্ঞার তোয়াক্কা না করেই জনসমাগম করে রাজনৈতিক কর্মকান্ড চালানো হচ্ছে। প্রবাস ফেরত ফেরত কেউ যদি এসব কর্মকান্ড অংশ নেয় তাহলে ভাইরাসটি দ্রত সাধারণ মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়বে।
বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসক মো. আব্দুল আহাদ জানিয়েছেন, সুনামগঞ্জে ইতিমধ্যেই সব ধরনের জনসমাগত বন্ধ রাখার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।