ভোর ৫:৫৫,   বুধবার,   ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ,   ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ,   ১৩ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি

হাওরে ধান কাটার তদারকিতে বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসক

স্টাফ রিপোর্টার :
সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর, জামালগঞ্জ ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার হাওরের ধান কাটার কাজ তদারকি করলেন বিভাগীয় কমিশনার মো. মশিউর রহমান ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ।
মঙ্গলবার ধান কাটার কাজ পরিদর্শনকালে আরো উপস্থিত ছিলেন সিলেট পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী মো. নিজামুল হক ভূঁইয়া, সিলেট কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক শ্রীনিবাস দেবনাথসহ জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তাবৃন্দ এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার।
আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী আগামী ২৬ থেকে প্রবল বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে এর ফলে সুনামগঞ্জ জেলায় অকাল বন্যা হওয়ারও আশংকা রয়েছে। এ অবস্থার প্রেক্ষিতে আগাম বন্যার হাত থেকে বোরো ফসল রক্ষার জন্য বিভাগীয় কমিশনার নিজে মাঠ পর্যায়ে ফসল কাটার কার্যক্রম তদরকি করছেন।
তাছাড়া অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ সুহেল মাহমুদ জগন্নাথপুর উপজেলার মইয়ার হাওর ও নলুয়ার হাওরসহ বিভিন্ন হাওরের ধান কাটা কাজ তদারকি করেন এবং অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ রাশেদ ইকবাল চৌধুরী শাল্লা উপজেলার বিভিন্ন হাওর ধান কাটা কাজ তদারকি ও সঠিক সময়ে নিরাপদে ধান কর্তন সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করেন। জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন সামাজিক/রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং কৃষক প্রতিনিধিগণের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করে দ্রুততম সময়ে ধান কাটার কাজে সকল শ্রেণি পেশার মানুষকে নিযুক্ত হবার বিষয়ে এবং সকল সচল হার্ভেস্টিং মেশিন ধান কাটার কাজে নিয়োজিত কারার বিষয়ে অনুরোধ জানান। এছাড়া জেলা পর্যায়ের দপ্তরের কর্মকর্তাগণকে ধান কাটার কাজ যথাযথ মনিটরিংয়ের জন্য উপজেলাওয়ারী দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।